Published On: Tue, Jan 8th, 2019

বাংলাদেশ অত্যন্ত অতিথিপরায়ণ

আলী খান ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক কানাডা গ্লোবাল লিগে তাক লাগিয়ে দেন সবাইকে। শৈশবের নায়ক ওয়াকার ইউনিসের দলে সুযোগ পেয়ে আট ম্যাচে নেন ১০ উইকেট, আইসিসি সহযোগী দেশের কোনো বোলারের যা ছিল সর্বোচ্চ। ২০১৬ সালে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) নিজের প্রথম বলে পেয়েছিলেন কুমার সাঙ্গাকারার উইকেট। ২০১৮ সিপিএলে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের হয়ে চার ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়ে দলের শিরোপা জয়ে রাখেন অবদান। বল হাতে সুনাম কুড়ানোয় এবারের বিপিএলে আলী খানকে উড়িয়ে এনেছে খুলনা টাইটান্স।

প্রশ্ন-ঃ সপ্তাহ খানেকও হয়নি বাংলাদেশে এসেছেন। যতটুকু সময় কাটিয়েছেন। কেমন লাগছে?

আলী খান: বাংলাদেশে প্রথমবার এসেছি। দারুণ দেশ। অত্যন্ত অতিথিপরায়ণ। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ভালো অনুশীলন হয়েছে আমাদের। গতকালই প্রথম ম্যাচ খেলেছি। এখন পর্যন্ত খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ এবং কর্মকর্তাদের থেকে যে সমর্থন পাচ্ছি, তাতে খুবই ভালো লাগছে। খুলনা টাইটান্সকে ধন্যবাদ আমাকে এ পরিবারে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য।

প্রশ্ন-ঃ প্রথমবার যখন জানলেন খুলনা টাইটান্স আপনাকে দলে নিয়েছে। ওই সময়টায় কেমন অনুভূতি হয়েছিল?
আলী খান: এই সুযোগটি আমার জন্য অনেক কিছু। এখনো মনে আছে আমি খুবই খুশি এবং রোমাঞ্চিত হয়েছিলাম। বিপিএল আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এখানে এর আগে কখনো খেলিনি। বিপিএল টেলিভিশনে দেখেছি। তাই টুর্নামেন্টটি আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আশা করছি দলের হয়ে ভালো কিছু করতে পারব।