Published On: Tue, Jan 8th, 2019

মাটির নীচের সবজিতে কতটা লাগাম দেবেন? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

বিট, গাজর, শালগম। বাজার ছেয়েছে মাটির নীচের সবজিতে। কিন্তু সুগারের ভয়ে খাচ্ছেন না? ভাবছেন মাটির নীচের সবজিতে সুগার হয়? সত্যিই কি তাই?

চল্লিশ পেরোলেই নাকি মাটির নীচের সবজি খাওয়া কমাতে হবে। আর সুগারের ভয়ে মাটির নীচের সবজিতে রাশ। ফলে, শীতের রকমারি সবজি খাওয়া কার্যত বন্ধ গাঙ্গুলিবাগানের শমিতার। মিষ্টি তো বন্ধই। চায়ে চিনিও মেপে। আর মাটির নীচে সবজিতে তো রীতিমতো লাগাম।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডায়াবেটিসে মাটির নীচের সবজিতে মানা একটা মিথ। আলু, কচু, গাজর, বিটে শর্করার পরিমাণ বেশি। তাই এই সব সবজি পরিমিত খাওয়া যেতে পারে। তবে, নিষিদ্ধ নয়। আবার মাটির নীচের সবজি হলেও মুলো, শালগম, পেঁয়াজ, রসুন, আদাতে শর্করা কম। তাই মাটির নীচের সবজি মানেই খাওয়া নিষেধ। এই কথাটি পুরোপুরি ঠিক নয় বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

আলু, মিষ্টি আলু, শালগম, বিটের মতো সবজি ভিটামিন, মিনারেল, ফাইবার, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। রান্না না করে সেদ্ধ খাওয়া যেতেই পারে। সাদা, হলুদ, কমলা, গোলাপি, বেগুনি রঙের মিষ্টি আলুতে অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান আছে। যা রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণ করে। গাজর, মুলো, শালগম, ব্রকোলিতেও রয়েছে প্রচুর উপকারী উপাদান। সেদ্ধ করে পরিমিত পরিমাণে এই সব সবজি খেলে সুগারের ভয় নেই বলেই দাবি বিশেষজ্ঞদের।