Published On: Tue, Jan 8th, 2019

থানায় ঢুকে যুবককে বেদম পেটালেন ডিসি ও তার স্ত্রী

ফেসবুকে নতুন করে ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। যেখানে থানায় ঢুকে পুলিশের সামনেই এক যুবককে এলোপাতাড়ি চড় মারতে দেখা যায় এক ব্যক্তিকে। শুধু তাই নয় ওই ব্যক্তির সঙ্গে থাকা এক মহিলাও ওই যুবককে একের পর এক চড়-লাথি মারেন। ভিডিওতে যুবকটিতে বার বার ক্ষমা চাইতে দেখা যায়। তারপরও চলতে থাকে প্রহার। রোববার প্রকাশ হওয়া ভিডিওটি ৫ মিনিট ৫২ সেকেন্ডের। বহুল আলোচিত এই ঘটনাটি ভারতের আলিপুরদুয়ারের।

সেখানে যে ব্যক্তিকে মারতে দেখা যায় তিনি হচ্ছেন, আলিপুরদুয়ারের ডিসি নিখিল নির্মল এবং মহিলাটি তার স্ত্রী নন্দিনী কৃষ্ণণ। আর যাকে মারধর দেয়া হয় তিনি ওই জেলার একজন বাসিন্দা। নাম তার বিনোদ। বিনোদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ফেসবুকে ডিসির স্ত্রীর পোষ্টে অশালীন মন্তব্য করেছেন। পরে যুবকের বিরুদ্ধে স্থানীয় ফালাকাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরই পুলিশ বিনোদকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

বিনোদকে থানায় নেয়ার কিছুক্ষণ পর স্ত্রীকে নিয়ে থানায় হাজির হন ডিসি নিখিল। তখন সেখানে থানার পুলিশ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু সকলের উপস্থিতিতেই থানায় ঢুকেই বিনোদকে মারধর শুরু করেন ডিসি। একের পর এক চড় মারা হয় বিনোদকে। নিখিলের সঙ্গে মারধরে যোগ দেন নিখিল ও নন্দিনী। তবে পুলিশের কাছে বিনোদ জানান, ডিসির স্ত্রী তার ফেসবুক বন্ধু। কিন্তু ওই মহিলা যে, ডিসির স্ত্রী সেটা জানতেন না তিনি। ফেসবুকে একটি বিষয় নিয়ে তর্কের জেরে তাকে আটক করা হয়।

মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানে যাননি এরশাদ-রওশন:: বঙ্গভবনে নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানে যাননি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ ও দশম জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। সোমবার বিকালে বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনাসহ মন্ত্রিসভার ৪৭ জন সদস্য শপথ গ্রহণ করেন। জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদেরও শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেননি। তবে তার (জিএম কাদের) যাওয়ার ইচ্ছা ছিল কিন্তু আমনত্রণপত্র না পাওয়ায় যেতে পারেননি বলি জানান তিনি।

জিএম কাদের ইউএনবিকে বলেন, ‘অসুস্থ থাকার কারণে এরশাদ বঙ্গভবনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেননি। আমাদের চেয়ারম্যান শনিবার রাত থেকে ঢাকার সিএমএইচে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে ম্যাডাম (রওশন) কি কারণে অনুষ্ঠানে যাননি, তা আমি জানি না।’ সিঙ্গাপুরে দির্ঘদিন চিকিৎসা শেষে নির্বাচনের মাত্র কয়েকদিন আগে দেশে ফেরা জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ আগামী ১৮ জানুয়ারি চিকিৎসার জন্য আবারও সিঙ্গাপুর যেতে পারেন বলে জানান জিএম কাদের। আগের মন্ত্রিসভার দু’জন প্রতিমন্ত্রীসহ জাতীয় পার্টির কয়েকজন সিনিয়র নেতা জানান, তারা ব্যক্তিগত কারণে বঙ্গভবনের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেননি।

জাতীয় পার্টির শীর্ষ নেতারা নতুন মন্ত্রিসভায় শপথ না নিলেও পার্টির এমপি ফখরুল ইমাম জানান, তিনিসহ দলের পাঁচজন সহকর্মী শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন। এর আগে ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি ১০ম জাতীয় সংসদের মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে এরশাদ ও রওশন উভয়ই যোগ দিয়েছিলেন। ওই মন্ত্রিসভায় তাদের পার্টির তিনজন সদস্য ছিল। তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ জানান, তার দল জাতীয় পার্টি এবার বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করবে। তার এ সিদ্ধান্ত বিজ্ঞপ্তি আকারে গত ৪ জানুয়ারি গণমধ্যমেও পাঠান তিনি।