Published On: Mon, Nov 26th, 2018

নিষিদ্ধ হয়ে যেতে পারে ৩০০ জরুরি ওষুধ, জানাচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক

স্যারিডন, ডি’কোল্ড টোটাল বা চেনা কোনও কাশির সিরাপ আর না-ও মিলতে পারে বাজারে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নিষিদ্ধ তালিকায় আসতে চলেছে তিনশোরও বেশি ওষুধ। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ৩০০টি ফিক্সড-ডোজ কম্বিনেশন মেডিসিনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে চলেছে মন্ত্রক।

 

ড্রাগ টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসরি বোর্ড-এর সুপারিশ অনুসারেই এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। জানা গিয়েছে, মোট ৩৪৩টি ফিক্সড-ডোজ কম্বিনেশন মেডিসিনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হতে পারে। ড্রাগ টেকনিক্যালস অ্যাডভাইসরি বোর্ড-এর সুপারিশ ক্রমেই এই তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। ২০১৭ সালেই সুপ্রিম কোর্ট এই সুপারিশ গ্রহণ করেছিল। এখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষা।

 

ফিক্সড-ডোজ কম্বিনেশন মেডিসিন হল সেই সব ওষুধ, যেগুলি একাধিক সক্রিয় ওষুধের সমন্বয়ে তৈরি হয়। মন্ত্রকের বক্তব্য, প্রতি ওষুধকে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে হবে। ‘মিশ্র’ ওষুধ যে স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর, তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ কমিশন জানিয়েছে। সেই সঙ্গে কোনও ওষুধ থেকে নেশার কোনও সম্ভাবনা থাকলেও তাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে চায় স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

 

২০১৬ সাল থেকেই এই লড়াই চালাচ্ছে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রক। ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলির সঙ্গে দীর্ঘ আইনি লড়াই আজ শেষের পথে।

source:ebela.in/health