Published On: Wed, Nov 7th, 2018

বউকে দেশে রেখে বিদেশে থাকলে যা হয়, আতকে উঠবেন

বউকে দেশে রেখে সৌদি গিয়েছিলেন স্বামী। ১৮ মাস ধরে তিনি সৌদিতেই অবস্থান করছেন। কিন্তু ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন স্ত্রী। স্বামীকে ছাড়া কীভাবে স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লেন এ নিয়ে এলাকায় চলছে তুমুল আলোচনা সমালোচনা। এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলায়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, পাঁচ বছর আগে উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের উত্তর লাটিমী গ্রামের মরহুম আবদুল মালেকের ছেলে কবির আহমদের সাথে ইসলামিয়া শরিয়া মোতাবেক ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের মঠবাড়িয়া গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে আকিজা আক্তার সাথীর বিয়ে হয়। এরপর ২০১৬ সালের (২৩ সেপ্টেম্বর) কবির আহমেদ উপার্জনের করতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব পাড়ি জমায়।

কিছুদিন পর তার স্ত্রী সাথী বাবার বাড়ি বেড়াতে যায়। এরপর সে পাশ্ববর্তী বাড়ির সরকারি চাকুরিজীবী বাবলু নামের এক যুবকের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে অবাধ মেলামেশায় লিপ্ত হয়।

তাদের এহেন কর্মকাণ্ড হাতেনাতে ধরা পড়ার পর সামাজিকভাবে বিষয়টি মীমাংসা হলে স্বামী কবির তা মেনে নেয়। কিন্তু ১৮ মাস পর চলতি বছরের গত ৩০ মার্চ কবির আহমেদ দেশে ফিরে আসে।

এর একদিন পর সাথী বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি লাটিমীতে আসে। কয়েকদিন পর কবির আহমেদ স্ত্রীকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার এক পর্যায়ে জানা যায় ‘সাথী ৮ মাসের অন্তঃসত্তা’।

এতে হতবাক হয়ে কবির আহমেদ স্ত্রী সাথীকে নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে। পরবর্তীতে অভিভাবকদের মাধ্যমে সাথীর অভিভাবকদের জানানো হলেও দুই সপ্তাহ ধরে তারা আসছে না। এ নিয়ে উৎকণ্ঠায় রয়েছে কবির।

২৭ এপ্রিল শুক্রবার সরেজমিন পরিদর্শনে যাওয়া সাংবাদিকদের সাথী জানায়, বিয়ের আগে থেকেই বাড়ির পাশের বাবলুর সাথে আমার সম্পর্ক ছিল। কিডনীতে সমস্যা হওয়ায় মাঝে মাঝে শরীর ফুলে যেতো। আমি গর্ভবর্তী হওয়ার বিষয়টি বুঝতে পারিনি।